চন্দা কোচারের অফিস আর আবাসনে ইডির হানা

Spread the love

আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক-ভিডিওকন লোন কেসের সাথে সম্পর্ক থাকার জন্য শুক্রবার চন্দা কোচার, দীপক কোচার আর ভেনুগোপাল ধূত ভিডিওকন ইন্ডাস্ট্রিজের চেয়ারম্যানের আবাসন আর অফিসে তল্লাশি চালায় ইডি। দিল্লী থেকে একটা দল মুম্বাইয়ে এসে এই তল্লাশি কার্য পরিচালনা করছে।

আইসিআইসিআই ব্যাংক-ভিডিওকোন ঋণের মামলায় অভিযুক্ত হিসেবে চন্দা কোচারের নামে সিবিআইয়ের দায়ের করা এফআইআর-এর উপর ভিত্তি করে ইডি এর মামলা করেছে।

ফেব্রুয়ারি মাসে আইসিআইসিআই ব্যাংকের প্রাক্তন এমডি ও সিইও চন্দা কোচার এবং তার স্বামী দীপক কোচার, ভেনুগোপাল ধূত ও অন্যদের বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিং করার জন্য ইডি একটি ফৌজদারি মামলা দায়ের করে। এই কর্পোরেট গ্রুপকে 1875 কোটি টাকার ঋণ অনুমোদনে ব্যাঙ্কের গোলযোগ আর দুর্নীতির বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে ইডি।


মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনের অধীনে দায়ের করা এনফোর্সমেন্ট কেস ইনফরমেশন রিপোর্ট (ইসিআইআর) কেন্দ্রীয় ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশনের
গত মাসের দায়ের করা এফআইআর-এ নজরে আসে। ইডির ইসিআইআর, পুলিশ এফআইআর-এর সমতুল্য।

এজেন্সির তরফ থেকে জানানো হয় যে, ঋণ অনুমোদনের জন্য চন্দা কোচার তার স্বামীর মাধ্যমে ভিডিওকোন গ্রুপ / ভেনিগোপাল ধূতের থেকে ঘুষ পেয়েছিলেন।

এজেন্সি অনুযায়ী, 1 লা মে, 2009 তারিখে চন্দা কোচার আইসিআইসিআই ব্যাংকের এমডি ও সিইও হিসাবে দায়িত্ব গ্রহণের পর ভিডিওকোনকে ঋণ দেওয়া হয়।


তিনি অনুমোদন কমিটিতে ছিলেন, যা কিনা ভিডিওকন ইন্টারন্যাশনাল ইলেক্ট্রনিক্স লিমিটেডকে (ভিআইইএল) 300 কোটি টাকা এবং ভিডিওকোন ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডকে (ভিআইএল) 750 কোটি টাকার ঋণ অনুমোদন করেছিল।


জুন 2009 থেকে অক্টোবর 2011 এর মধ্যে চন্দা কোচার যখন আইসিআইসিআই ব্যাংকের এমডি ও সিইও ছিলেন, তখন ভিডিওকনের বিভিন্ন সংস্থাকে আইসিআইসিআই ব্যাংক 6 টি মোটা টাকার ঋণ অনুমোদন করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *