জামিন পেলেন না নীরব মোদী,হোলির দিন জেলেই কাটালেন

Spread the love

পলাতক হীরা ব্যবসায়ী নীরব মোদীর জন্য এবছরের হোলিটা বর্ণহীন ছিল।
তাকে একটি ব্যাংক থেকে গ্রেপ্তার করার পর আদালত তার জামিন প্রত্যাখান করেন। তারপর দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় লন্ডনের একটি ঘিঞ্জি জেলখানা ওয়ান্ডসওয়ার্থে তাকে রাখা হয় এই বলে যে নীরব মোদী গ্রেপ্তারি এড়াতে ব্রিটেন ছেড়ে পালাতে পারেন।

29 শে মার্চ পর্যন্ত আদালত তাকে হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেয়। জালিয়াতি ও ফৌজদারি সম্পত্তি গোপন করার অভিযোগে গ্রেফতার হওয়ার পর পুলিশের একটি সেল এ রাত কাটান নীরব। তারপর ওয়েস্টমিনস্টার ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে হাজির হন মোদি।

29 মার্চ পর্যন্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মারি ম্যালন তাকে হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন। এরপর তার প্রাথমিক বিচার করবেন চিফ ম্যাজিস্ট্রেট এমা আরবুথনট, যিনি বিজয় মাল্যর মামলার ক্ষেত্রেও ছিলেন। এই গ্রেফতার ভারত এর পথ প্রশস্ত করল এমন একজন কুখ্যাত হীরে ব্যবসায়ীকে দেশে ফিরিয়ে আইনের সম্মুখীন করার ক্ষেত্রে।

মঙ্গলবার লন্ডনে মেট্রো ব্যাংকে গ্রেপ্তার হন নীরব মোদি, যেখানে তিনি একটি অ্যাকাউন্ট খুলতে গিয়েছিলেন এবং সেখানকার একজন কর্মী পুলিশকে ডেকেছিলেন। গ্রেপ্তারের নির্ধারিত দিনের পাঁচদিন আগেই তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে: তার আইনজীবীরা তাকে 25শে মার্চ সোমবার পুলিশ স্টেশনে কম নাটকীয়ভাবে গ্রেফতার করার ব্যবস্থা করেছিলেন। আশ্চর্যভাবে নীরব মোদী, বিজয় মাল্যর ভাড়া করা উকিলকেই নিয়োগ করেন।

ভারতের পররাষ্ট্র বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বলেন, “আমরা সাধুবাদ জানাই যে ওয়েস্টমিনস্টার ম্যাজিস্ট্রেটস কোর্টের জারি করা গ্রেপ্তারি পরোয়ানা অনুসারে ইংল্যান্ড কর্তৃপক্ষ নীরব মোদিকে গ্রেফতার করছে।” ইংল্যান্ডের ভারপ্রাপ্ত কর্তৃপক্ষের সঙ্গে ভারত সরকার সক্রিয়ভাবে এই বিষয়টি নিয়ে যোগাযোগ রাখছে যাতে অবিলম্বে ভারতে নীরব মোদিকে ফেরত আনা যায়।

মোদির কাকা ও সহ-অভিযুক্ত মেহুল চোকসি, যিনি বর্তমানে এন্টিগাতে আছেন বলে বিশ্বাস , তার বিরুদ্ধে ভারত প্রত্যর্পণ মামলা চালিয়ে যাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *