স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় রাহুল গান্ধীর নাগরিকত্বের বিষয়ে নোটিশ পাঠিয়েছে

Spread the love

বিজেপি নেতা সুব্রহ্মণ্যম স্বামীর অভিযোগের পর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কংগ্রেসের সভাপতি রাহুল গান্ধীকে তার নাগরিকত্বের বিষয়ে নোটিশ জারি করে।

স্বামী তার ট্যুইটারে বলেনঃ ” আমার অভিযোগের উপর ভিত্তি করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কি বুদ্ধুকে তার ব্রিটিশ নাগরিকত্বের বিষয়ে নোটিশ জারি করেছে?”ট

রাহুল গান্ধীর বিদেশী নাগরিকত্ব আছে, এমন অভিযোগের উপর তার “ফ্যাকচুয়াল পজিশন” সম্পর্কে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রালয় নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ব্যাখ্যা চেয়েছে। স্বামী কয়েক বছর ধরে অভিযোগ করছেন যে কংগ্রেস প্রেসিডেন্ট নিজেকে নথিতে ব্রিটিশ নাগরিক হিসেবে ঘোষণা করেছেন।


স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পরিচালক, বিসি জোশি’র চিঠিতে বলেছেন, “আমাকে বলতে বলা হয়েছে যে এই মন্ত্রণালয় ডঃ সুব্রহ্মণ্যম স্বামীর থেকে একটি উপস্থাপনা পেয়েছে, যার মধ্যে বলা হয়েছে যে 2003 সালে ব্যাকআপ লিমিটেড নামে একটি কোম্পানি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নিবন্ধিত হয়েছিল, 51, সাউথগেট স্ট্রীট, উইনচেস্টার, হ্যাম্পশায়ার এসও23 9ইএইচ ঠিকানায় এবং আপনি সেই কোম্পানির পরিচালক ও সচিব ছিলেন।”

মন্ত্রণালয় অভিযোগ করে বলেছে যে 10 অক্টোবর, 2005 এবং 31 অক্টোবর 2006 তারিখে কোম্পানির বার্ষিক আয়ের খতিয়ানে রাহুল গান্ধীর জন্ম তারিখ 19 জুন, 1970 বর্ণিত আছে এবং “আপনি আপনার জাতীয়তা ব্রিটিশ হিসাবে ঘোষণা করেছিলেন।”

চিঠিতে জানানো হয়েছে,17 ই ফেব্রুয়ারি, 2009 তারিখের কোম্পানি বন্ধের আবেদনপত্রেও রাহুল গান্ধীর জাতীয়তা ব্রিটিশ বলা আছে।

চিঠির বলা হয়, যোগাযোগের প্রাপ্তির পনেরো দিনের মধ্যে এই বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের কাছে প্রকৃত ঘটনাটি জানানোর জন্য আপনাকে অনুরোধ করা হচ্ছে।

কংগ্রেসের মুখপাত্র রনদীপ সুরজিওয়ালা বলেন, “বিজেপি ভয়ার্ত হয়ে আছে। বিজেপির কাছে রাহুল গান্ধীই একমাত্র লক্ষ্য। তারা যা চায় তা তারা করতে পারে তবে তারা নির্বিচারে নির্বাচন হারবে। “

বিজেপির মুখপাত্র আব্বাস নাকভি বলেন, এটি একটি দলের সভাপতির জন্য “গুরুতর প্রশ্ন”। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন, “আপনি যদি ভোট দিতে চান বা নির্বাচনে লড়াই করতে চান তবে আপনাকে ভারতের নাগরিক হতেই হবে।”

19 ই মে সাধারণ নির্বাচন শেষ হবে এবং ফলাফল ২3 মে ঘোষণা করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.