ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন দুর্ঘটনায় নিহত যাত্রীদের পরিবার বোয়িংএর বিরুদ্ধে মামলা করল

Spread the love

ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্স দুর্ঘটনায় নিহত কানাডার পরিবারের সদস্যরা বিমান নির্মাতা বোয়িংয়ের বিরুদ্ধে মামলা শুরু করেছে।

সংবাদসংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসের খবর অনুযায়ী, শিকাগোর আইনজীবীরা অন্টারিওর ব্র্যাম্পটন পরিবারের পক্ষ থেকে মামলাটি দায়ের করেছেন যারা পরিবারের ছয়জন সদস্যকে হারিয়েছেন এবং হ্যামিল্টনে বসবাসকারী স্ত্রী এবং তিনটি ছোট শিশুকে হারিয়েছেন এমন একজন ব্যক্তিও মামলা দায়ের করেছেন।

মামলাকারী পরিবারের আইনজীবিরা অভিযোগ করেছেন যে বোয়িং লোভে অন্ধ হয়ে গিয়েছিল কারণ তারা তাড়াহুড়ো করে 737 ম্যাক্স 8 জেট বাজারে এনেছিল এবং তারা দাবি করেছে যে কোম্পানিটি নিরাপত্তাকে অগ্রাহ্য করে মুনাফার পথ নিয়েছে। “বোয়িং লোভে অন্ধ হয়ে গেছিল এবং বিপজ্জনকভাবে 737 ম্যাক 8 বাজারে নিয়ে আসে যুক্তরাষ্ট্রীয় ফেডারেল এভিয়েশন এডমিনিস্ট্রেশনের অনুমোদন নিয়ে কিন্তু বোয়িং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে স্বয়ংক্রিয় সিস্টেমের ত্রুটির প্রকৃতি গোপন করে।”

যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল এভিয়েশন এডমিনিস্ট্রেশনয়ের বিরুদ্ধেও পরিবারগুলি মামলা করে অভিযোগ করেছে যে নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি বিমানটিকে চটজলদি বাজারে আনার অনুমোদন দিয়েছিল।

মামলাটিতে অভিযোগ করা হয়েছে যে বোয়িং নেতৃত্ব তাদের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী এয়ারবাস এর কাছে বাজারের ভাগ হারানোর ব্যাপারে চিন্তিত ছিল, তাই তারা 737 এ্যারোপ্লেনগুলির একটি সংশোধিত সংস্করণ বের করার চেষ্টা করেছিল। দাবি অনুযায়ী সম্পূর্ণরূপে নতুন ডিজাইনের পরিবর্তে সংশোধিত সংস্করণের কারণে তারা পাইলটদের 737 ম্যাক্স 8 চালানোর অনুমতি দেয় “ব্যাপক সিমুলেশন অনুশীলন বা পুনরাবৃত্তি ছাড়াই”।

যাইহোক মামলাগুলিতে অভিযোগ করা হয়েছে যে, আরও জ্বালানী-দক্ষ বিমানের লক্ষ্যে বড় ইঞ্জিনগুলি স্থানান্তরিত করা হয়েছিল, যা পরে ল্যান্ডিং গিয়ারকে অগ্রসর হতে বাধ্য করেছিল। পুরোনো 737 এর পাইলটরা উপলব্ধি করেছিলেন যে ম্যাক 8 “আরও দ্রুত এবং উচ্চতর কোণে উঠবে, যা ইঞ্জিন স্থগিত হওয়ার ঝুঁকি বাড়াবে”।

ইস্যুটি মোকাবেলা করার জন্য, কোম্পানিটি একটি নতুন স্বয়ংক্রিয় ফ্লাইট নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা ব্যবহার করেছে যা আরো দ্রুত আরোহণের সমস্যাটির সামাল দিতে সহায়তা করবে। সিস্টেমটি বিমানপোতের কাঠামোর একটি সেন্সরের উপর ভিত্তি করে তার তথ্য বিচার করে যা বিমানটির কোণটি সনাক্ত করবে।

আদালতে অভিযোগ প্রমাণিত হয়নি। বোয়িং বলে তারা মামলার বিষয়ে মন্তব্য করতে পারবেনা।


মুখপাত্র পৌল আর বার্গম্যান বলেছেন,”আমরা ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট 302-এর যাত্রীদের পরিবারের প্রতি গভীরভাবে সহানুভূতিশীল”। “বোয়িং সবরকম তদন্তে সমর্থন করছে এবং উপলব্ধি হিসাবে নতুন তথ্য মূল্যায়ন করার জন্য কর্তৃপক্ষকে সাহায্য করছে।”

ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট 302 এ ভ্রমনরত 157 জন ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। প্রসঙ্গত 10 ই মার্চ বোয়িং 737 ম্যাক্স 8 বিমানটি আদ্দিস আবাবা থেকে নাইরোবি পর্যন্ত যাত্রা শুরু করেছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may have missed