খাশোগী হত্যামামলা ইউএন এর নতুন রিপোর্ট

Spread the love

ইউএন এর পক্ষ থেকে সম্প্রতি করা একটি রিপোর্ট থেকে জানা গেছে, ইস্তানবুলে সৌদি কনস্যুলেটে সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগী হত্যামামলায় প্রধান সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে ট্রায়ালে পাঠানো হয় নি।

সৌদি রাজকুমার মহম্মদ বিন সালমানের একজন প্রাক্তন উপদেষ্টা সৌদ আল-কাহতানি ইস্তানবুলে খাশোগীকে হত্যা করতে আসা হিট স্কোয়াডের সাথে যোগাযোগ রেখেছিল।

গত অক্টোবর মাসে খাশোগী তুরস্কে অবস্থিত সৌদি দূতাবাসে প্রবেশ করলে তাকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়।

খাশোগীর হত্যা করা হয়েছে এই সত্যটা স্বীকার করার আগে রিয়াধের পক্ষ থেকে খাশোগীর অন্তর্ধান নিয়ে নানা রকমের ব্যখ্যা করে।

বুধবার ইউএন এর প্রকাশিত রিপোর্ট নিশ্চিত করে যে খাশোগী হত্যামামলায় 11 জন জড়িত ছিল। যার মধ্যে নয়জন, 15 জনের হিট- স্কোয়াডের সদস্য ছিল, যারা দুটি চার্টার্ড বিমানে করে ইস্তানবুলে এসেছিল।

বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বারবার দাবী করে যে খাশোগীকে হত্যা করার জন্য আল- কাহতানি স্কাইপের মাধ্যমে হিট-স্কোয়ডকে আদেশ দিয়েছিল।

ইস্তানবুলে সৌদি আরবের প্রাক্তন কনসুল জেনারেল আল-ওটাইবি যিনি খাশোগীর হত্যআর পরিকল্পনার সাথে জড়িত ছিলেন, সৌদি আরবে তাঁকেও ট্রায়ালে পাঠানো হয় নি।

দূতাবাসে খাশোগী নেই এটা প্রমাণ করার জন্য আল-ওটাইবি দূতাবাসের দরজা সাংবাদিকদের সামনে খুলে দিয়েছিলেন, এমনকি তিনি আলমারি ইলেক্ট্রিক্যাল প্যানেলও খুলে দেখিয়েছিলেন।

অন্য ছয়জন সদস্যকেও কোর্টে হাজির করা হয় নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *