ভারত এবং পাকিস্তানের মাঝে করতারপুর করিডোর খোলার জন্য চুক্তি স্বাক্ষরিত হল

Spread the love

আজ বৃহস্পতিবার ভারত এবং পাকিস্তানের মাঝে করতারপুর করিডোর খোলার জন্য চূড়ান্ত চুক্তি স্বাক্ষরিত হল। এই চুক্তি সীমান্ত শহর গুরুদাসপুরে ডেরা বাবা নানকের কাছে জিরো পয়েন্টে দুই দেশের মধ্যে সাক্ষরিত হয়। এই চুক্তি স্বাক্ষর হওয়ার ফলে শিখ ধর্মাবলম্বীরা পাকিস্তানের করতারপুরে তাদের তীর্থক্ষেত্রে তীর্থ করতে যেতে পারবেন।

শিখ ধর্মের প্রবক্তা গুরু নানক পাকিস্তানের এই করতারপুরের দরবারে তার জীবনের শেষ 18 বছর কাটিয়েছিলেন। এই দরবার পাকিস্তানের নারোয়াল জেলায় অবস্থিত যা আন্তর্জাতিক সীমানা থেকে মাত্র চার কিমি দূরে। করতারপুর করিডোর, এই দরবারের সাথে ভারতের পাঞ্জাবের ডেরা বাবা নানক গুরুদওয়ারাকে যুক্ত করে।

পাকিস্তানের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে এই গুরুদওয়ারার পাশাপাশি অঞ্চলে তারা যথেষ্ট পরিমাণে লঙ্গরখানা তৈরি করবে এবং যা যা পরিকাঠামো প্রয়োজন সেই দিকেও নজর দেবে। ভারতের পক্ষ থেকেও জানানো হয়েছে যে ভারতের পক্ষ থেকেও প্রয়োজনীয় পরিকাঠামোর উপর নজর দেওয়া হবে এবং সেই অনুযায়ী কাজ করা হবে। যাতে সকালবেলা গিয়েই সন্ধ্যের মধ্যে ফিরে আসা যায় তাই সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এই করিডোর খোলা থাকবে।

করতারপুর করিডোর কেবল শিখ ধর্মাবলম্বীরাই নয়, যেকোনো ধর্মের ভারতীয় নাগরিক বা ভারতীয় বংশোদ্ভূত মানুষ এই করিডোর ব্যবহার করতে পারবেন। যিনি করতারপুর করিডোর ব্যবহার করবেন তার বৈধ পাসপোর্ট থাকলেই এই করিডোর ব্যবহার করা যাবে, এর জন্য ভিসার প্রয়োজন নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *