জম্মু কাশ্মীর এবং লাদাখ দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে বিভক্ত হয়ে গেল

Spread the love

চলতি বছরের 31 অক্টোবর থেকে জম্মু-কাশ্মীর এবং লাদাখ দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে বিভক্ত হয়ে গেছে এবং এই দিন থেকেই আমলাতান্ত্রিক ভাবে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল কাজ শুরু করে। এই বছরেই 5 অগাস্ট সংসদে এই বিষয়ে ঘোষণা করা হয়েছিল। । গত 5 অগাস্ট থেকে 31 অক্টোবর পর্যন্ত রাজ্য প্রশাসন এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক একটি ন্যূনতম আমলাতান্ত্রিক পরিকাঠামো বজায় রেখেছিল।

এদিনই জম্মু কাশ্মীর হাইকোর্টে দুই কেন্দ্রশসিত অঞ্চলের দুই লেফটেন্যান্ট গভর্নর শপথ গ্রহণ করেন। জম্মু কাশ্মীরের লেফটেন্যান্ট গভর্নর হিসেবে নিযুক্ত হয়েছেন গুজরাট ক্যাডারের আইএএস অফিসার গিরিশচন্দ্র মুর্ম এবং লাদাখের লেফটেন্যান্ট গভর্নর হয়েছেন ত্রিপুরা ক্যাডারের অবসরপ্রাপ্ত আমলা রাধাকৃষ্ণ মাথুর। জম্মু কাশ্মীরের ডিজি হিসেবে কাজ করবেন দিলবাগ সিং এবং লাদাখে পরবর্তীকালে একজন আইজি নিয়োগ করা হবে।

যদিও বিভাজন পুরোপুরি সম্পন্ন করতে পুনর্গঠন আইন একবছর সময় দিয়েছে তবে এই প্রক্রিয়া পুরোপুরি সম্পন্ন হতে এর থেকেও বেশী সময় লাগতে পারে। যেমন অন্ধ্রপ্রদেশ এবং তেলেঙ্গানা 2013 সালে দুই রাজ্যে বিভক্ত হওয়ার পরেও বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য তারা এখনও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের দ্বারস্থ হয়।

আইন পুনর্গঠনের কাজ চলছে, তবে তার অনেকটাই এখনও বাকি রয়েছে। জম্মু কাশ্মীর বাদে সমগ্র দেশে যেসব আইন কার্যকর সেগুলি বাতিল করার কাজ চলছে। রাজ্যের 153টি আইন বাতিল হয়েছে এবং 166টি আইন লাগু হয়েছে।

রাজ্য প্রশাসন পুনর্গঠিত আইনে উল্লিখিত সমস্ত কিছুই কার্যকর করেছে। তবে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে এখন যে 108টি কেন্দ্রীয় আইন লাগু হবে তার কাজ এখনও বাকি আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *